Attack on pregnant woman in Kishoriganj Dead twins were born two days after the settlement

5 / 100

কিশোরীগঞ্জে গর্ভবতি নারীর উপর হামলা॥ মিমাংশার দুইদিন পর মৃত জমজ সন্তান প্রসব

স্টাফ রিপোর্টার,নীলফামারী॥ নীলফামারীর কিশোরীগঞ্জ উপজেলার পল্লীতে প্রতিপরে আঘাতের শিকার হয়ে স্বপ্না বেগম(২৮) নামের এক সন্তান সম্ভবা গৃহবধূ মৃত জমজ সন্তান প্রসব করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গৃহবধূর পরিবারের অভিযোগ, প্রতিপরে লোকজন গর্ভবতী ওই নারীর পেটে লাঠি দিয়ে আঘাত করে এবং মাটিতে ফেলে পেটে লাথি মারে।

পরে আহত অবস্থায় স্বপ্নাকে কিশোরীগঞ্জ উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে মৃত জমজ সন্তান প্রসব করে। এ ঘটনায় আজ শুক্রবার(৯ জুলাই/২০২১) গৃহবধু স্বপ্না বেগমের বাবা তৈয়ব আলী বাদী হয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় চারজনকে আসামী করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

আসামীরা হলেন উপজেলার বাহাগিলি ইউনিয়নের উত্তর দুরাকুটি পাগলটারী গ্রামের শাহ আলম (৩০), সাগর মিয়া(১৮), বাবু মিয়া (৩৩) ও তোফা মিয়া(৬০)। গৃহবধু স্বপ্না বেগমের বাবা তৈয়ব আলী, কিশোরীগঞ্জ উপজেলার বাহাগিলি ইউনিয়নের উত্তর দুরাকুটি নান্নুর বাজার গ্রামের আল-আমিনের সঙ্গে ১০ বছর আগে তার মেয়ের বিয়ে হয়। তারা সুখে শান্তিতে সংসার করছে। গ্রামের প্রতিবেশী উল্লেখিত আসামীদের সঙ্গে জমির ক্ষেতের ধান গরু খাওয়াকে কেন্দ্র করে তার জামাতার বিরোধ সৃস্টি হয়।

এরই জের ধরে গত ২ জুলাই প্রতিপক্ষরা আমার মেয়েকে মারপিট ও মাটিতে ফেলে পেটে লাথি মারে। এলাকাবাসী আমার মেয়েকে উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করায়। ঘটনা ধামাচাপা দিতে গ্রামের প্রভাবশালী ব্যাক্তিগন থানায় মামলা করতে বাধা দিয়ে বিষয়টি মিমাংশা করে দেয়।

Staff Reporter, Nilphamari. It has been alleged that a child named Swapna Begum (28) gave birth to twins in the village of Kishoriganj upazila of Nilphamari. The housewife’s family alleged that the men then hit the pregnant woman in the abdomen with a stick and kicked her in the abdomen.

Later, Swapna was admitted to Kishoriganj Upazila Hospital with injuries and gave birth to twins. Today, on Friday (July 9, 2021), housewife Swapna Begum’s father Tayyab Ali filed a written complaint against the four accused.

The accused are Shah Alam (30), Sagar Mia (18), Babu Mia (33) and Tofa Mia (60) of North Durakuti Pagaltari village in Bahagili union of the upazila. Tayyab Ali, the father of housewife Swapna Begum, got married to Al-Amin of Nannur Bazar village in North Durakuti of Bahagili union of Kishoriganj upazila 10 years ago. They are living happily in peace. His son-in-law got into a dispute with the accused, a neighbor of the village, over eating paddy and cows in the field.

Due to this, on July 2, the opponents beat my daughter and threw her on the ground and kicked her in the stomach. The locals rescued my daughter and admitted her to the Upazila Hospital. In order to cover up the incident, influential people of the village settled the matter by preventing them from filing a case with the police station.

Leave a Comment