সাকিবকে ক্ষমা চাইতে বললেন প্রোটিয়া সাংবাদিক

 

ডারবানে বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার প্রথম টেস্টে সবার নজর কেড়েছে স্বাগতিক দেশের দুই আম্পায়ারের পক্ষপাতমূলক আচরণ। বাংলাদেশের বোলার-ফিল্ডারদের কোনো আবেদনে সাড়া না দেওয়ার শপথ করেছিলেন যেন মারাইস এরাসমাস ও আদ্রিয়ান হোল্ডস্টোক।

পারিবারিক কারণে টেস্টে না থেকেও এমন আম্পায়ারিং মেনে নিতে পারেননি সাকিব আল হাসান। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের মতামত প্রকাশ করেন সাকিব আল হাসান। বিষয়টাকে ভিন্নভাবে নিয়ে বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ককে ক্ষমা চাইতে বলেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাংবাদিক টেলফোর্ড ভাইস।আইসিসির কাছে নিরপেক্ষ আম্পায়ারের আবেদন করে টুইট বার্তায় সাকিব লেখেন, ‘আমি মনে করি, আইসিসির জন্য আগের মতো নিরপেক্ষ আম্পায়ার ফেরানোর সময় এসেছে। কারণ বেশিরভাগ ক্রিকেট খেলুড়ে দেশে করোনা পরিস্থিতি অনেক উন্নতি হয়েছে।’

ক্রিকবাজে স্বদেশি দুই আম্পায়ার আম্পায়ার ইরাসমাস এবং হোল্ডস্টকের অভিজ্ঞতার বিবরণ তুলে ধরে টেলফোর্ড লেখেন, ‘ম্যাচে চারটি ভুল সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের বিপক্ষে এবং চারটি পক্ষে গেছে। এটা সাকিব আল হাসানের ভালোভাবে জানা উচিত। এক্ষেত্রে ইরাসমাস এবং হোল্ডস্টকের কাছে সাকিবের ক্ষমা চাওয়া উচিত।’

এরপর তিনি বাংলাদেশের আম্পায়ারিং ও আম্পায়ারদের সঙ্গে সাকিব আল হাসানের আচরণের বিষয়টি উল্লেখ করে খোঁচা দেন।

Leave a Comment