‘সরি আম্মু, আমি সাকিবকে ভালোবাসি’

 

ট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের দুই নম্বর ওয়ার্ডের সিকদার পাড়ায় চিঠি লিখে আত্মহত্যা করেছে এক ছাত্রী।

রবিবার (১০ এপ্রিল) রাতে লোহাগাড়া থানার ওসি আতিকুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। পরে এ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। এ সময় মরদেহের পাশ থেকে একটি চিঠি উদ্ধার করা হয়। নিহত স্কুলছাত্রী লোহাগাড়া উপজেলার পশ্চিম আমিরাবাদ সিকদার পাড়ার আবদুল গফুরের মেয়ে রক্সি পারভীন জুবলি (১৭)। তিনি আইয়ুব ফাউন্ডেশন টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্রী।

পুলিশ ও পরিবারের সদস্যরা জানান, শনিবার (৯ এপ্রিল) রাতে খাবার খেয়ে নিজের কক্ষে ঘুমাতে যান জুবলি। সেহরি খাওয়ার জন্য ডাকলে সাড়া না দেওয়ায় দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করেন স্বজনরা। এ সময় জুবিলির মরদেহ ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় ছিল। স্থানীয় বাসিন্দা নজরুল ইসলাম জানান, প্রেমে বাধা দেওয়ায় মা-বাবার সঙ্গে অভিমান করে জুবলি আত্মহত্যা করেছেন।চিঠিতে লেখা রয়েছে, ‘সরি আম্মু, আমি সাকিবকে ভালোবাসি। সাকিবকে বিয়ে করতে চেয়েছি। তোমরা তাকে মেনে নিতে পারবে না। তোমরা এতবার বলার পরও আমি তাকেই ভালোবাসি। তাকে ছাড়া বাঁচতে পারবো না। তাই আজ তোমাদের আমি সব বলে বিদায় নিলাম। তোমরা সবাই ভালো থেকো।’

লোহাগাড়া থানার ওসি আতিকুর রহমান বলেন, এ ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে মরদেহের পাশ থেকে একটি চিঠি উদ্ধার করা হয়েছে। স্বজনরা জানিয়েছেন, এক ছেলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল তার। এ নিয়ে মা-বাবা বকাঝকা করেছিলেন। এজন্য অভিমান করে আত্মহত্যা করেছেন। এ ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

Leave a Comment