রোজায় মুসলিম খেলোয়াড়দের জন্য যে সুবিধা করে দিয়েছে লিভারপুল

লিভারপুল অনুশীলনের সূচি পরিবর্তন করায় সুবিধা হয়েছে সালাহ–মানেদের
লিভারপুল অনুশীলনের সূচি পরিবর্তন করায় সুবিধা হয়েছে সালাহ–মানেদের ছবি: রয়টার্স
রমজান মাসে পরিবর্তন আসে প্রায় সব কিছুতেই। লিভারপুলও তাদের অনুশীলনের সাধারণ সময়সূচি পাল্টেছে। মুসলিম খেলোয়াড়েরা যেন রোজা রাখতে পারেন, সে জন্য এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইংলিশ ক্লাবটি।

লিভারপুলে সিনিয়র মুসলিম খেলোয়াড়েরা হলেন মোহাম্মদ সালাহ, সাদিও মানে, ইব্রাহিম কোনাতে ও নবি কেইতা। সেনেগাল ফরোয়ার্ড মানে জানিয়েছেন, লিভারপুল অধিনায়ক জর্ডান হেনডারসন এ বিষয়ে কথা বলেছেন কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপের সঙ্গে।

মুসলিম খেলোয়াড়দের পক্ষ নিয়ে হেনডারসনই ক্লপকে অনুশীলনের সূচি পরিবর্তন করতে রাজি করান। আগে বিকেলে অনুশীলন করত লিভারপুল। কিন্তু এখন তা পাল্টে সকালে নেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
সংবাদমাধ্যম ‘বিইন স্পোর্টস’কে মানে বলেছেন, ‘খেলা, অনুশীলন ও রোজা রাখা একসঙ্গে চালিয়ে যাওয়া মোটেই সহজ কাজ নয়। তবে রোজা শুরুর আগে আমরা অধিনায়কের সঙ্গে কথা বলেছি। সে আমাদের হয়ে কোচকে বলেছে, অনুশীলনের সূচি সকালে নিতে পারলে ভালো হয়। আমাদের (মুসলিম) জন্য তাতে কাজটা একটু সহজ হয়। সকালে অনুশীলন করলে বাসায় গিয়ে বিশ্রাম নেওয়ার সুযোগ থাকে। কিন্তু বেলা দুইটা কিংবা তিনটায় অনুশীলন করলে কাজটা কঠিন হয়ে যায়। কোচ এতে রাজি হন এবং আমার মনে হয়, তাতে আমাদের সুবিধাই হয়েছে, নিজেদের সেরাটা দিতে পারছি।’

অনুশীলনের সময় পাল্টেছে লিভারপুল। তাতে রোজা রেখেই খেলতে পারছেন সালাহ–মানেরা
অনুশীলনের সময় পাল্টেছে লিভারপুল। তাতে রোজা রেখেই খেলতে পারছেন সালাহ–মানেরাছবি: রয়টার্স
অ্যানফিল্ডে ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে কাল চ্যাম্পিয়নস লিগ সেমিফাইনাল প্রথম লেগে ২-০ গোলে জিতেছে লিভারপুল। স্প্যানিশ ক্লাবটি একটি আত্মঘাতী গোল করেছে, এর পাশাপাশি মোহাম্মদ সালাহর পাস থেকে গোল করেন সাদিও মানে। বোঝাই যাচ্ছে, মাঠে নিজেদের সেরাটাই নিংড়ে দিচ্ছেন সালাহ-মানেরা।

রোজার সময় খেলোয়াড়েরা ম্যাচের দিন কীভাবে নিজেদের সামলে থাকেন, তা নিয়েও কথা বলেছেন মানে, ‘কাজটা কঠিন হলেও ম্যাচের দিনটা সব সময়ই বিশেষ কিছু। রোজা রেখে খেলা তো কঠিন, তবে লিভারপুল সব সময়ই আমাদের জন্য সবকিছু সহজ করার চেষ্টা করে থাকে। আমরা আমাদের পুষ্টিবিদ মোনার সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলে থাকি। বিশেষ করে ম্যাচের দিন। সে আমাদের জন্য সবকিছু এত সহজ করে দেয় যে রোজা রাখতে পারি।’

সংবাদমাধ্যম স্পোর্টস ইলাস্ট্রেটেড জানিয়েছে, লিভারপুলে বুধবার সকাল ছয়টার আগে সূর্য উঠেছে। সূর্য ডুবেছে সাড়ে আটটা নাগাদ। অর্থাৎ স্থানীয় সময় অনুযায়ী কাল প্রথম লেগে বিরতির আগপর্যন্ত মানে-সালাহরা রোজা ভাঙতে পারেননি বলে মনে করছে সংবাদমাধ্যমটি।

সালাহ ও কোনাতে ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে পুরো ম্যাচেই মাঠে ছিলেন। ৭৩ মিনিটে মাঠ ছেড়েছেন মানে। শেষ ২০ মিনিট হেনডারসনের বদলি হয়ে খেলেছেন নাবি কেইতা।

Leave a Comment