মহানুভবতার অনন্য দৃষ্টান্ত পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম

পবিত্র ওমরাহ পালন করতে সৌদি আরবে এখন বাবর আজম। টুইটার আর ইন্সটাগ্রামে মোহাম্মদ (সা.) এর রওজা মোবারকের ছবি প্রকাশ করেছেন তিনি। বিশ্বের অন্যতম সেরা ক্রিকেটারই নন ধর্মীয় আর সামাজিক রীতিনীতি মানায়ও আদর্শ বাবর। অসহায়, দরিদ্রদের জন্য নিয়মিত সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন পাকিস্তান অধিনায়ক।

মাথায় পাগড়ি, পরনে টুপ। সৌদি আরবে ওমরাহ করতে সেখানকার ঐতিহ্যবাহী বস্ত্র পরিধান করেছেন বাবর আজম। মদিনা রাসুল (সা.) রওজা মোবারকের সামনে দাড়িয়ে তোলা পাকিস্তান অধিনায়কের ছবি এখন নেট দুনিয়ায় ভাইরাল। বাবরের সঙ্গী আরও দুই পাকিস্তানি ক্রিকেটার ফখর জামান আর শাদাব খান।

অস্ট্রেলিয়ার পর থেকে সফল হোম সিরিজের পর থেকেই ছুটিতে বাবর আজম। ধর্মীয় অনুশাসন আর পরিবারকে সময় দিয়ে মাঠে ফিরবেন ঈদের পর। ওমরাহ করতে যাওয়ার আগে রমজানে লাহোরের রাস্তায় পথ শিশুদের মাঝে ইফতার বিতরণ করেছেন বাবর ও শাদাব। নিজেরাও ইফতার করেছেন এতিম শিশুদের সঙ্গে। এছাড়াও এসব ক্রিকেটারদের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের যাকাত পেতে যাচ্ছে সেখানকার ভূমিহীন দরিদ্র পরিবার।

সামাজিক দায়বদ্ধতার নজির নিয়মিত দেখা যায় বাবর আজমের কর্মকাণ্ডে। এর আগে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতকে হারিয়ে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের জন্য ২০ লাখ রুপি অনুদান দেন পাকিস্তান অধিনায়ক। উৎসর্গ করেন নিজের বাবাকে। শিক্ষা বিষয়ক দাতব্য সংস্থা ছায়া করপোরেশনের মাধ্যমে যার সুবিধা পায় পাকিস্তানের আড়াইশো শিক্ষার্থী।

যে ভারতে হারিয়ে এমন উল্লাস বাবর আজমের দুঃসময়ে সে ভারতকেই আগলে রেখেছেন পরম মমতায়। করোনায় যখন বিপর্যস্ত ছিল ভারত, অক্সিজেন সংকট চরমে তখন ভারতীয়দের জন্য দোয়া চেয়েছেন একসঙ্গে কোভিড মোকাবিলার আহ্বান করেছেন তিনি। হ্যাশট্যাগে লিখেছিলেন স্টে স্ট্রং ইন্ডিয়া।

করোনাকালীন সময়ে নিজ দেশ পাকিস্তানের জন্য আর্থিক সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন বাবর আজমসহ দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। প্রধানমন্ত্রী কোভিড রিলিফ ফান্ডে সম্মিলিতভাবে দেড় কোটি রুপি অনুদান দিয়েছে পিসিবি ও পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা।

ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই শাসন করে চলেছেন বাবর আজম। ৪০ টেস্টে ২৮৫১, ৮৬ ওয়ানডেতে ৪২৬১ আর ৭৪ টি-টোয়েন্টিতে ২৬৮৬ রান বলছে কতটা ধারাবাহিক এ ব্যাটসম্যান। এভাবে চলতে থাকলে শচীন টেন্ডুলকারকেও ছাড়িয়ে যাবেন বাবর। সময় পরিমাণ টেস্ট ওয়ানডে খেলে যে বাবরের চেয়ে কম রান ছিল লিটল মাস্টারের।

Leave a Comment