প্রকাশ্যে দিনমজুরের মুখের দাড়ি টেনে ছিঁড়ে ফেললেন ব্যবসায়ী

 

লুঙ্গি কেনাকে কেন্দ্র করে শনিবার দুপুরে গাজীপুরের শ্রীপুরে প্রকাশ্যে মানিক মিয়া নামে এক দিনমজুরকে পেটানোর পর তার মুখের দাড়ি টেনে ছিঁড়ে ফেলেছে এক ব্যবসায়ী। উপজেলার জৈনা বাজার এলাকায় সিদ্দিক প্লাজার সামনে এ ঘটনা ঘটে।প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার দুপুরে সাইফুল ইসলাম নামে এক ব্যবসায়ী ফেরি করে শাড়ি ও লুঙ্গি বিক্রি করছিলেন। এসময় ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার রাধাকানাই গ্রামের চান মিয়ার ছেলে দিনমজুর মানিক মিয়া লুঙ্গি কিনতে ওই ফেরিওয়ালাকে থামান। এরপর সিদ্দিক প্লাজার সামনে ছায়ার মধ্যে বসে মানিক মিয়া শাড়ি লুঙ্গি দেখছিলেন।

এ ঘটনায় মার্কেটের ব্যবসায়ী কাওরাইদ ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামের প্রয়াত আবুল হাশেমের ছেলে আব্দুর রহিম প্রচণ্ড ক্ষুদ্ধ হয়ে ওঠে। এরই প্রেক্ষিতে মানিক মিয়ার মুখের দাড়ি টেনে ছিঁড়ে ফেলেন তিনি। এ খবর পেয়ে শ্রীপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মানিক মিয়াকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।এ প্রসঙ্গে মানিক মিয়া বলেন, প্রচণ্ড রোদের মধ্যে না বসে মার্কেটের সামনে ছায়ায় ওই ফেরিওয়ালাকে নিয়ে বসি। এতে প্রচণ্ড ক্ষিপ্ত হয়ে ওই ফেরিওয়ালাকে গালাগাল শুরু করেন তিনি। এক পর্যায়ে তিনি সাইফুল নামে ওই ফেরিয়ালাকে পেটাতে থাকেন।

তিনি আরও বলেন, এতে আমি প্রতিবাদ করায় আমার দিকে তেড়ে এসে লম্বা দাড়ি মুঠি করে ধরে টেনে হিঁচড়ে দোকানের ভেতরে নিয়ে যায়। এ সময় টেনে টেনে আমার মুখের অসংখ্য কাচা দাড়ি মানিক তুলে ফেলে।

Leave a Comment