পরকীয়ার জেরে স্বামীকে গুম, ৮ বছর পর প্রেমিক গ্রেফতার

 লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় পরকীয়ার প্রেমের জেরে প্রেমিকের সহায়তায় স্বামীকে গুম করার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার ৮ বছর পর প্রেমিক সাবুল হোসেনকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার (৯ এপ্রিল) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এরশাদুল আলম। এর আগে শুক্রবার (৮ এপ্রিল) বিকালে ঢাকার গাজীপুরের কাশিমপুর মাধবপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত সাবুল হোসেন হাতীবান্ধা উপজেলার উত্তর গোতামারী এলাকার আমিন উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ জানায়, প্রায় ৯ বছর আগে উপজেলার উত্তর গোতামারী এলাকার বন্ধু আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী লতিফা বেগমের সঙ্গে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে অভিযুক্ত সাবুল হোসেন। স্ত্রীর সঙ্গে বন্ধু সাবুলের পরকীয়ার বিষয়টি জানতে পেলে তাদের বাধা দেন স্বামী আনোয়ার। একপর্যায়ে বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে আনোয়ারকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যান বন্ধু সাবুল হোসেন। সেই থেকে এখন পর্যন্ত বাড়িতে ফেরেনি আনোয়ার হোসেন।

এদিকে স্বামী আনোয়ার হোসেন নিখোঁজ থাকা অবস্থাতে প্রেমিক সাবুলের সঙ্গে দ্বিতীয় বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়ে ঘর-সংসার শুরু করেন লতিফা বেগম। পরে এ ঘটনায় ২০১৪ সালে
আনোয়ার হোসেনের মা আনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে স্থানীয় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। দীর্ঘদিন পেরিয়ে গেলেও ছেলে আনোয়ার হোসেন উদ্ধার না হলে গত বছরে ২৪ এপ্রিল লালমনিরহাট জেলা দায়রা জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন মা আনোয়ারা বেগম।

ওই মামলার সূত্র ধরে অভিযুক্ত সাবুল ও তার সহযোগীদের ধরতে মাঠে নামে পুলিশ। পরে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় গতকাল শুক্রবার বিকালে গাজীপুরের মাধবপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে হাতীবান্ধা থানা পুলিশ। এ ব্যাপারে হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এরশাদুল আলম বলেন, হাতীবান্ধা থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক আজিজার রহমান ও তার সঙ্গীয় একটি চৌকষদল গাজীপুর থেকে সাবুল হোসেনকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শনিবার দুপুরে গ্রেফতার সাবুল হোসেনকে লালমনিরহাট আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। ভিকটিম আনোয়ার হোসেনকে উদ্ধারের জন্য আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

Leave a Comment