‘নারায়ণগঞ্জের মানুষ ঢাকাকে বলবে গুডবাই, আল্লাহ হাফেজ’

শিপন সিকদার, নারায়ণগঞ্জ থেকে: নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেছেন, ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড অদ্ভুত সুন্দর হবে। এইটা বাংলাদেশের বেষ্ট রোড হবে। আমরা নারায়ণগঞ্জে ডিএডির প্রজেক্ট এনেছি। শীতলক্ষ্যার উপর দিয়ে সেতু হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জে জেলা স্টেডিয়াম হচ্ছে, এই খান জাহান ওসমান আলী স্টেডিয়ামটা বিনা কারণে নষ্ট হয়েছে। এইটা নষ্ট হওয়ার কথা না। রোববার (২৪ এপ্রিল) বিকেলে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের পাশে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তুর স্থাপন অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শামীম ওসমান বলেন, আপাকে বলেছি আপা হয়েছে বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচার হয়েছে, আপা বলেন তোমাদের স্বপ্ন পুরণ হয়েছে, আমারটা হয় নাই। আমি বললাম আপনার স্বপ্ন কি? তিনি বললেন বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করা। তিনি আরও বলেন, নারায়ণগঞ্জ থেকে মুন্সিগঞ্জ যাওয়ার যে রাস্তাটা আছে বিসিক শিল্প নগরী সেখানে ১৪০০ কোটি টাকা দিয়ে একদম স্ট্রেট ওয়েতে নারায়ণগঞ্জ থেকে মুন্সিগঞ্জ পযর্ন্ত ফ্লাইওভার হচ্ছে। ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পরো রাস্তাটা বাংলাদেশের প্রথম ডিপিডি হচ্ছে। বাংলাদেশে প্রথম কমপ্লিটলি আরসিসি রাস্তা হবে। যদি এই সকল কাজগুলো হয়ে যায় তাহলে প্রাচ্যের ড্যান্ডি আবার তার রূপ ফিরে পাবে।

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে শামীম ওসমান বলেন, নারায়ণগঞ্জের সাংবাদিক ভাইয়েরা আমি খোলামেলা কথা বলতে চাই। আর নারায়ণগঞ্জের ইয়াং জেনারেসন এই বিশ্ববিদ্যালয়, এই মেডিকেল কলেজ এগুলা আমার চাহিদায় আসছে, কিন্তু কেউ কেউ চাচ্ছে এগুলিকে এমন এলাকায় নিয়ে যেতে যেখানে নারায়ণগঞ্জের কোন কাজ হবে না। এই জায়গাটাতে যদি হয় তাহলে নারায়ণগঞ্জের শুধু উপকার হবে না টোটাল পূর্বাঞ্চল যা আছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ যেতে হবে না, লিংরোডে এসে লেফট নিবে হাসপাতাল পেয়ে যাবে। পূর্বাঞ্চল থেকে ঢাকা ইউনির্ভাসিটি যেতে হবে না, নারায়ণগঞ্জ ইউনির্ভাসিটিতে চলে আসবে। আর যদি কোন অলিগলিতে নিয়ে যাই তাহলে সেই ধরনের চেষ্টা চলছে।

শামীম ওসমান বলেন, আর একটা জিনিস চাচ্ছি, ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের পাশে একটা বিল্ডিং করা হয়েছে, আজকে ৫ বছর ধরে বিল্ডিংটা অব্যবহৃত। কারণ আইনজীবীরা ওখানে যাবেন না। আমি আইন মন্ত্রীকে বলেছি উনিও রাজি, স্বাস্থমন্ত্রীকে বলেছি উনিও রাজি কিন্তু এখন পর্যন্ত কাজ হয় নাই।

আমরা চাই এতবড় একটা বিল্ডিং পড়ে আছে ওইটাকে একটা অত্যাধুনিক হার্ট ইনিস্টিটিউট করার জন্য। তিনি বলেন, আমার বিশ্বাস এই মেডিকেল কলেজ, হার্ট ইনিস্টিটিউট, ইউনির্ভাসিটি, আইটি সেন্টার এইগুলো যদি হয়ে যায় তাহলে নারায়ণগঞ্জের মানুষ ঢাকাকে বলবে গুড বাই, খোদা হাফেজ। এসো প্রাচ্যের ড্যান্ডি দেখে যাও।

Leave a Comment