ধর্ষকের গোপনাঙ্গ কেটে ফেললেন নারী

7 / 100

নাটোরে ধর্ষণ থেকে রক্ষা পেতে এক নারী ধর্ষণচেষ্টাকারীর গোপনাঙ্গ কেটে ফেলেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় দুইজনকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে গোপনাঙ্গ হারানো ব্যক্তির অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।সোমবার (৩০ মে) রাত সাড়ে ১১টার দিকে

জেলার বড়াইগ্রাম উপজেলার প্রতাপপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।গোপনাঙ্গ হারানো ব্যক্তির নাম চাঁন মোহাম্মদ। তিনি উপজেলার প্রতাপপুর গ্রামের বাসিন্দা। নির্যাতনের শিকার নারীও একই গ্রামের বাসিন্দা।স্থানীয়রা জানায়, তারা দুইজন প্রতিবেশী। সোমবার রাতে তাদের চিৎকার চেঁচামেচিতে স্থানীয় লোকজন রক্তাক্ত অবস্থায় দুইজনকে উদ্ধার করে

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সেখানে চাঁদ মোহাম্মদের অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।নির্যাতনের শিকার ওই নারী জানান, স্বামী দুই বছর আগে মারা গেছেন। অনেক আগে থেকে এই ব্যক্তি আমাকে বিরক্ত করতেন। সোমবার রাতে আমি প্রকৃতির ডাকে বাইরে বের হলে বাড়িতে কেউ না



থাকার সুযোগে আমাকে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। বাধা দিলে আমার গলায়, হাতে কামড়িয়ে এবং গলাটিপে মেরে ফেলার চেষ্টা করেন। আমি কোনো উপায় না দেখে হাতের কাছে থাকা অস্ত্র দিয়ে তার গোপনাঙ্গ কেটে ফেলেছি। বড়াইগ্রাম থানার ওসি জানান আবু সিদ্দিক জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত কেউ থানায় লিখিত অভিযোগ করে নাই। অভিযোগ করলে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Comment