তামিম ও জয় সেঞ্চুরির কাছাকাছি, দুজনের রেকর্ড পার্টনারশিপে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ!

10 / 100

তামিম ইকবালের চেয়ে কিছুটা রয়েসয়ে শুরুটা করেছিলেন ৩১ রান নিয়ে তৃতীয় দিন ব্যাটিংয়ে নামা তরুণ ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয়।

অবশেষে ১১০ বল খেলে টেস্ট ক্রিকেটে নিজের দ্বিতীয় অর্ধশতক তুলে নিয়েছেন ২১ বছর বয়সী এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে দারুণ সেঞ্চুরি পেলেও পরের তিন ইনিংসে দুইবার আউট হন রানের খাতা খোলার আগেই, আরেক ইনিংসে করেন ৬ রান।

দেশে ফিরে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগটাও ভালো যায়নি জয়ের। ৪ ইনিংসে করেন মোটে ৩২ রান। এই টেস্ট দিয়ে আবারও রানের ধারায় ফিরলেন তিনি।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম টেস্টের তৃতীয় দিনে শুরু থেকেই চালিয়ে খেলেছেন তামিম। ৫২ বলে ৩৫ রান নিয়ে দিন শুরু করা তামিম এদিন মাত্র ২১ বল খেলেই ফিফটি স্পর্শ করেন।

ইনিংসের ২৪ তম ওভারের প্রথম বলেই লেট কাটে রমেশ মেন্ডিসকে সীমানাছাড়া করে ব্যক্তিগত পঞ্চাশ রান পূর্ণ করেন তামিম। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ১৪২ বলে ৮৯ রানে অপরাজিত রয়েছেন তিনি। আর জয় ব্যাটিং করছেন ১১৮ বলে ৫৭ রান নিয়ে।

তামিম-জয় উদ্বোধনী জুটিতে এখন পর্যন্ত ১৪০ রান তুলেছেন। টেস্টে ৬১ ইনিংস পর উদ্বোধনী জুটিতে এই প্রথম শতরান দেখল বাংলাদেশ।

তামিম-জয়ের এই জুটির পূর্বে ২০১৭ সালের মার্চে সর্বশেষ উদ্বোধনী জুটিতে শতরান তুলেছিল বাংলাদেশ, সেটাও ছিল এই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশ কোন উইকেট না হারিয়ে ৩৬.৪ ওভারে ১৪০ রান সংগ্রহ করেছে। প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কার করা ৩৯৭ রানের চেয়ে এখনো ২৫৭ রান পিছিয়ে আছে বাংলাদেশ।

অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসের ১৯৯ রানের লড়াকু ইনিংসে চড়ে প্রথম ইনিংসে ৩৯৭ রানের পাহাড় গড়েছে শ্রীলঙ্কা।

১৫ মাস পর সাদা পোশাকের ক্রিকেটে ফিরে ৬ উইকেট তুলে নিয়ে শ্রীলঙ্কাকে চারশ ছোঁয়ার আগে বেঁধে ফেলতে অবদান রেখেছিলেন অফ স্পিনার নাঈম হাসান।

Leave a Comment