তাঁর সঙ্গে অবশ্যই আমার একটা সম্পর্ক ছিল, পরে সম্পর্কটা ভেঙে যায় : রোদেলা

রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে সম্প্রতি মহরত হয়েছে, এখনো সিনেমার শুটিং শুরু করতে

পারেননি রোদেলা জান্নাত। ধারণা করা হচ্ছে, এ মাসের মাঝামাঝি শুরু হবে শাকিব খানের \\\\\\\’

একসময়ের সংবাদ উপস্থাপক রোদেলা জান্নাতের। এদিকে তিন বছর আগে ফেসবুকে পোস্ট করা কিছু স্থিরচিত্র সামনে চলে আসায় ঢালিউডের হবু নায়িকাকে ঘিরে তৈরি হয়েছে আলোচনা। ছবিতে রোদেলাকে তাঁর \\\\\\\’বাগদত্তা\\\\\\\’ বলে দাবি করেছেন সাজিদ হোসেন রোহেল নামের এক ব্যক্তি। দুজনের অন্তরঙ্গ কিছু স্থিরচিত্র ঘুরছে ফেসবুকে। ছবির মানুষের সঙ্গে সম্পর্ক আর নতুন ছবি নিয়ে ভাবনা নিয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন রোদেলা জান্নাত।

\\\\\\\’শাহেনশাহ\\\\\\\’ ছবির শুটিং কবে শুরু হচ্ছে?
পরিচালকের কাছ থেকে শুনেছি শুটিং শুরু হবে। কিন্তু কবে শুরু হবে, তা আমি কী করে বলব! গত মাসেই তো শুটিং শুরু হওয়ার কথা ছিল। এরপর জানানো হলো প্রি-প্রোডাকশনের কাজ চলছে। প্রযোজক বলেছেন, বিগ বাজেট, তাই একটু সময় লাগবে।

ফেসবুকে আপনার কিছু স্থিরচিত্র নিয়ে নানা কথা হচ্ছে।
ওরে বাবা (হাসি) ! রোহেল আমার বয়ফ্রেন্ড ছিল। আমাদের মধ্যে গভীর সম্পর্ক ছিল। পরে সে সম্পর্ক আর এগোয়নি।

আপনাদের বাগদান হয়েছিল?
হ্যাঁ, বাগদান হওয়ার কথা ছিল। পারিবারিকভাবে সবকিছু এগিয়েছিল। আমরাও সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, বাগদান হবে। কিন্তু এরপর আমি নিজেই সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছি।

শুনেছি, আপনি নাকি বিয়েও করেছেন?
ওরে বাবা রে (হাসি) !

ফেসবুকে রোহেলের কিছু পোস্ট নিয়েও কথা হচ্ছে?
এগুলো অনেক পুরোনো।

তাহলে সম্পর্কটা নিয়ে আপনার অবস্থান কী?
তাঁর সঙ্গে অবশ্যই আমার একটা সম্পর্ক ছিল। তবে ২০১৬ সালের পর আমাদের সম্পর্কটা ভেঙে যায়। এরপর তাঁর সঙ্গে আর কোনো যোগাযোগ নেই। আমি পড়াশোনা আর গবেষণার কাজ নিয়ে ব্যস্ত আছি। এটা আমার অতীতের একটা অংশ।

এখন কিন্তু আপনার বাগদান আর বিয়ে নিয়ে কথা শোনা যাচ্ছে।
একেবারেই ফালতু। যাকে নিয়ে কথা হচ্ছে, সে তো মিডিয়ার ছেলে। চাইলেই যে কেউ তাঁর সঙ্গে কথা বলতে পারবেন। সবার পরিবার আছে, আমারও আছে। বিয়ে লুকানোর মতো কোনো ব্যাপার না। চাইলেও কেউ তা লুকাতে পারে না। এরপরও যদি কেউ এসব নিয়ে কথা বলেন, সেখানে আমার কী করার আছে!

রোহেল ফেসবুকে দেওয়া পোস্টে লিখেছেন, আপনি তাঁর বাগদত্তা।
আমি জানি না, ও কী লিখেছে। যদি ও লিখে থাকে তাহলে… (চুপ)। আসলে সেই সময় ও আমার ব্যাপারে খুব ক্রেজি ছিল।

আপনি মালয়েশিয়ায় পড়াশোনা করছেন। রোহেলও তো মালয়েশিয়ায় আছেন।
হ্যাঁ। কিন্তু আমাদের মধ্যে কোনো যোগাযোগ নেই। সম্ভবত অন্য কারও সঙ্গে ওর সম্পর্ক। হয়তো সেই মেয়ের সঙ্গে তার বিয়েও হবে, তবে আমি নিশ্চিত না। আমাদের বিয়ের বিষয়টা স্রেফ গুজব। এটা কী করে সম্ভব! কে বা কারা কোন স্বার্থে এমনটা প্রচার করছে, জানি না। মানুষের তাতে কী লাভ? আমি অনেক ছোট, সিনেমায় যাত্রা এখনো শুরু হয়নি। এখনই যদি আমাকে নিয়ে ফালতু কথা বলা শুরু করে, ভবিষ্যৎ তো পড়েই আছে। আসলে সিনেমা জগৎ খুব জটিল।

এই জটিল জগতে স্থায়ী হওয়ার ইচ্ছা আছে?
প্রথম ছবিতে নিজেকে যদি পচা লাগে, তাহলে তো আর কোনো ছবি করব না। দর্শককে কেন অত্যাচার করব? আমার এই ছবি যদি ভালো হয়, তাহলে কনটিনিউ করব। তা না হলে গুডবাই।

Leave a Comment