কালবৈশাখী ঝড়ে দুই লঞ্চের সংঘর্ষ

কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে চাঁদপুরে মেঘনার মোহনায় সংঘর্ষের মুখে পড়েছে যাত্রীবাহী দুই লঞ্চ। এ ঘটনায় বড় ক্ষতির থেকে রক্ষা পেয়েছে দুই লঞ্চের যাত্রীরা। শুক্রবার (২২ এপ্রিল) বিকেলে ভোলার বোরহানউদ্দিনের হাকিমুদ্দিন ঘাট থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া টিপু-১২ ও মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলার মুলাদী থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া এমভি মিতালী-৪ লঞ্চ দুটি চাঁদপুরের গজারিয়া এলাকার মেঘনা মোহনায় আসলে কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

তবে এ দুর্ঘটনায় বড় ধরণের কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে জানিয়েছেন টিপু-১২ লঞ্চের সুপারভাইজার মেহেদী। তিনি বলেন, মিতালী লঞ্চের ধাক্কা টিপু লঞ্চের পাশে লাগে ফলে লঞ্চটির কার্নিশে কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এতে কোন হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও যাত্রীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

লঞ্চটির সুপারভাইরাজ মেহেদী বলেন, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বোরহানউদ্দিনের হাকিমুদ্দিন ঘাট থেকে আমাদের লঞ্চটি ছেড়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। পথিমধ্যে লঞ্চ কয়েকবার কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়লে বিভিন্ন যায়গায় ঘাট করা হয়। বিকালে লঞ্চটি চাঁদপুরের গজারিয়া এলাকার মেঘনা মোহনায় পৌঁছালে প্রচণ্ড ঝড়ের কবলে পড়ে। এসময় মেহেন্দীগঞ্জের মুলাদী থেকে ছেড়ে আসা মিতালী-৪ লঞ্চটি পাশ থেকে টিপু-১২ লঞ্চকে ধাক্কা দেয়। মিতালী লঞ্চের ধাক্কায় টিপু-১২ লঞ্চের কার্নিশের কিছুটা ক্ষতি হয়। পরে টিপু-১২ লঞ্চ রাত সাড়ে ১০টার দিকে নিরাপদে ঢাকা সদরঘাটে এসে পৌঁছায়।

টিপু-১২ লঞ্চের যাত্রী তানজিদ আলম, আরিফসহ আরও অনেকে জানান, ‘লঞ্চটি চাঁদপুরে মেঘনা মোহনায় আসলে প্রচণ্ড ঝড়ের কবলে পড়ে। এসময় পাশে থাকা মিতালী-৪ লঞ্চটি দ্রুত গতিতে এসে টিপু লঞ্চের পাশে প্রচণ্ড ধাক্কা দেয়।’ এ ঘটনায় কেউ হতাহত না হলেও টিপু-১২ লঞ্চটি কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

Leave a Comment