এতেকাফে নামাজরত অবস্থায় মুসল্লির মৃত্যু

এতেকাফে নামাজরত অবস্থায় আব্দুল খালেক নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে রবিবার (২৪ এপ্রিল) দুপুরে পেরিয়া ইউনিয়নের রুদ্রচুমা জামে মসজিদে জোহরের নামাজ পড়া অবস্থায় মারা যান তিনি।তার বয়স হয়েছিলো ৭০ বছর। বৃদ্ধ আবদুল খালেক ওই গ্রামের দুবাই প্রবাসী আব্দুল্লাহ আল-মামুনের বাবা।পেরিয়া ইউপি

চেয়ারম্যান এমএ হামিদ বলেন, আব্দুল খালেক গত শুক্রবার সন্ধ্যায় রুদ্রচুমা জামে মসজিদে ১০ দিনের জন্য এতেকাফে যান।রবিবার দুপুরে জোহরের নামাজ পড়া অবস্থায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মসজিদেই তিনি মারা যান। আব্দুল খালেক খুবই ভালো মানুষ ছিলেন।

আরও পড়ুন= সৌদি আরবের জেদ্দায় নিযুক্ত ব্রিটিশ কনসাল জেনারেল সাইফুদ্দিন আশার অনেক আগেই ইসলাম গ্রহণ করেন। গত বছর মসজিদে নববিতে এসে টুইটারে একটি ছবি পোস্ট করে নিজের আনন্দ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন তিনি।পবিত্র কাবা ঘরের গিলাফ তৈরির প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করেছেন সৌদি আরবের জেদ্দায় নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের কনসাল জেনারেল সাইফুদ্দিন আশারের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল। শনিবার (২৩ এপ্রিল) সৌদি আরবের মক্কায় অবস্থিত কাবার গিলাফ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান কিং আবদুল

আজিজ কমপ্লেক্স ফর ম্যানুফ্যাকচারিং হলি কিসওয়া পরিদর্শনে আসেন ব্রিটিশ প্রতিনিধি দল।এসময় ব্রিটিশ প্রতিনিধি দলকে স্বাগত জানান প্রতিষ্ঠানের জনসংযোগ বিভাগের প্রধান পরিচালক অধ্যাপক আহমদ বিন মুসায়িদ আল সুওয়াইহারি ও সহকারি পরিচালক অধ্যাপক হামজাহ বিন আবদুল ইলাফ আল আয়ুনি।কমপ্লেক্সে এসে কনসাল জেনারেল সাইফুদ্দিন পবিত্র কাবা ঘরের গিলাফ তৈরির পুরো প্রক্রিয়া পরিদর্শন করেন।এছাড়াও কমপ্লেক্সের বিভিন্ন বিভাগ, গিলাফ তৈরির প্রক্রিয়া ও অত্যাধুনিক উন্নত

সরঞ্জাম বিভিন্ন পর্যবেক্ষণ করেন। স্বর্ণের কারুকার্যখচিত কাবা ঘরের গিলাফ এমব্রয়ডারি করার পদ্ধতিও দেখানো হয় তাকে।পবিত্র কাবা গৃহের গিলাফ তৈরির প্রক্রিয়া পরিদর্শন করে মার্কিন কনসাল জেনারেল সাইফুদ্দিন সৌদির সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করেন। এছাড়াও সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ ও যুবরাজ মুহাম্মদের সুদক্ষ নেতৃত্বে মক্কা ও মদিনার পবিত্র দুই মসজিদসহ মুসলিম জাতির সেবা দেওয়ার ভূয়সী প্রশংসা করেন। কাবার গিলাফ তৈরির প্রক্রিয়া প্রদর্শনের সুযোগ পেয়ে পবিত্র দুই মসজিদের পরিচালনা পর্ষদের প্রধান শায়খ ড. আবদুর রহমান আল সুদাইসের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

Leave a Comment